Saturday, January 28, 2023
spot_img
Homeবিজ্ঞান ও প্রযুক্তিইলন মাস্কের প্রশংসা করে টুইটে যা বললেন তসলিমা নাসরিন

ইলন মাস্কের প্রশংসা করে টুইটে যা বললেন তসলিমা নাসরিন

টুইটার ঘিরে অশান্তি যেন কমছেই না। শীর্ষস্থানীয় মাইক্রোব্লগিং সাইটটি কেনার পর থেকে বহু কর্মী ছাঁটাই করে বিতর্কে জড়িয়েছেন ধনকুবের ইলন মাস্ক। তাঁর সমালোচনায় মুখর সারা বিশ্ব। কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন! টুইটারে তিনি স্বীকার করেছেন যে মাস্ককে তাঁর ভালো লাগে।

ঠিক কী লিখেছেন তসলিমা নাসরিন? নিজের পোস্টে তিনি লেখেন, ‘ইলন মাস্ককে আমার ভালো লাগে। তাঁর বিপুল অর্থের জন্য নয়। বরং তাঁর হাসিটা অনেক সুন্দর। ’


ছবি : ইলন মাস্ককে নিয়ে তসলিমা নাসরিনের টুইটের স্ক্রিনশট

আচমকা লেখিকার এমন পোস্ট ঘিরে নেটিজেনদের মধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে। তসলিমার মতের সঙ্গে একমত হয়েছেন অনেক নেটিজেন, মাস্কের হাসি সত্য়িই সুন্দর বলে মেনে নিয়েছেন। পাশাপাশি এমন পোস্টের জন্য তাঁকে কটাক্ষও করেছেন অনেকে।

একজন কটাক্ষ করে লিখেছেন, ‘ওই হাসি কেবল অনেক টাকা থাকলেই আসে। ’ আরেকজন তসলিমার নাস্তিকতাকে কটাক্ষ করে লিখেছেন, ‘কিন্তু তিনি যে বিশ্বাস করেন ঈশ্বর রয়েছে!’

এ ছাড়াও অনেকেই মাস্কের সমালোচনাও করেছেন ওই পোস্টে। তাঁদের দাবি, মাস্ক যেভাবে সুন্দর হাসির আড়ালে কর্মী ছাঁটাই করে চলেছেন, তা নিন্দনীয়। সব মিলিয়ে তসলিমার পোস্ট ঘিরে নেটিজেনদের নানা ধরনের মত সামনে এসেছে।

গত ২৭ অক্টোবর টুইটারের মালিক হন মাস্ক। ৪৪ বিলিয়ন ডলার খরচ করে সাইটটি কিনে নেন তিনি। তার পর থেকে শুরু হয়েছে বিতর্ক। তিনি দায়িত্ব নিয়েই জানিয়েছিলেন, ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট পাওয়ার পদ্ধতি পাল্টাতে চলেছে। টাকা দিলেই মিলবে ব্লু টিক। টাকার বিনিময়ে ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্ট নিলে মিলবে অনেক সুবিধাও। সিদ্ধান্তের পর থেকেই বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন। তাঁদের দাবি ছিল, ব্লু টিক কেবল অর্থের বিনিময়ে পাওয়ার এই নিয়ম থেকে বিপত্তি হতে পারে। নানা ধরনের ভুয়া তথ্য ছড়ানো হতে পারে এর সাহায্যে। তাঁদের উদ্বেগ যে অমূলক নয়, তা পরিষ্কার হয়ে গেছে এই কয়েক দিনেই। এমন পরিস্থিতিতে সবাইকে অবাক করে দিয়েছে মাস্ককে নিয়ে তসলিমার প্রশংসা। সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments