Monday, April 15, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকইরাকের পার্লামেন্ট থেকে বিক্ষোভকারীদের সরে যাওয়ার আহ্বান

ইরাকের পার্লামেন্ট থেকে বিক্ষোভকারীদের সরে যাওয়ার আহ্বান

সুরক্ষিত গ্রিন জোনে অবস্থিত ইরাকের পার্লামেন্ট। শিয়াপন্থি প্রভাবশালী নেতা মুকতাদা আল সদরের সমর্থকরা কয়েকদিন ধরে তা দখলে রেখেছে। নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেদ করে তারা পার্লামেন্টের ভিতর অবস্থান করছে। এতে গ্রিন জোনে অবস্থিত সরকারি অফিস, বিদেশি মিশনগুলোর নিরাপত্তা হুমকিতে পড়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা।  

এ অবস্থায় ওই শত শত বিক্ষোভকারীকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে পার্লামেন্ট ভবন থেকে বেরিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেছেন মুকতাদা আল সদরপন্থি সিনিয়র নেতা মোহাম্মদ সালেহ আল ইরাকি। তিনি তাদেরকে পার্লামেন্ট ভবন থেকে বেরিয়ে ভবনের সামনে এবং এর চারপাশে অবস্থান নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তার এই আহ্বানের অর্থ হলো বিক্ষোভকারীরা গ্রিন জোনের ভিতরেই অবস্থান করবে। আল ইরাকি আরও ঘোষণা দিয়েছেন যে, গ্রিন জোনের ভিতরে শুক্রবার জুমার নামাজকে কেন্দ্র করে বিরাট আকারের একটি র‌্যালি হবে। 

আল ইরাকি এমন ঘোষণা দেয়া সত্ত্বেও পার্লামেন্ট ভবনের ভিতরে দ্বিধাদ্বন্দ্ব আছেই। কিছু কর্মকর্তা বলেছেন, বিক্ষোভকারীদেরকে মূল চেম্বার এবং একটি মিটিং রুম ত্যাগ করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

কিন্তু তারা পার্লামেন্ট ভবনের এন্ট্রান্স হলে অবস্থান করতে পারবে। 
উল্লেখ্য, গত অক্টোবরে ইরাকের পার্লামেন্ট নির্বাচন হয়। তাতে বিজয়ী হন মুকতাদা আল সদর ও তার দল। কিন্তু সরকার গঠনের জন্য একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছিল না তার। তিনি অন্য দলকে নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনও করতে পারেননি। এতে রাজনৈতিক এক অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়। এ অবস্থার উত্তরণে জুনে পদত্যাগ করে আল সদর ব্লক। তারা পদত্যাগ করলে তাদের আসনগুলোতে যারা নির্বাচনে দ্বিতীয় অবস্থানে ছিলেন, সংবিধান অনুযায়ী তাদেরকেই নির্বাচিত ঘোষণা করার কথা। এতে সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে সরকার গঠনের পথ সুগম হওয়ার কথা। কিন্তু নির্বাচনের পর ১১ মাস কেটে গেছে। অবস্থার অবনতি ছাড়া কোনো উন্নতি হয়নি। 

আল সদর ব্লক পদত্যাগ করার ফলে ইরানপন্থি কোঅর্ডিনেশন ফ্রেমওয়ার্ক হয়ে ওঠে পার্লামেন্টে সর্ববৃহৎ দল। কিন্তু নতুন একজন প্রধানমন্ত্রী, প্রেসিডেন্ট বা মন্ত্রীপরিষদ ইস্যুতে কোনো ঐকমত্য হয়নি। অবশেষে তারা নতুন সরকারের প্রধানমন্ত্রী পদে প্রার্থী হিসেবে মোহাম্মদ আল সুদানির নাম ঘোষণা করে। আল সুদানিকে দেখা হয় ইরানপন্থি হিসেবে। এর প্রতিবাদে আল সদরের সমর্থকরা শনিবার পার্লামেন্ট ভবনে ঝড়ো গতিতে প্রবেশ করে। 

তেলসমৃদ্ধ এই দেশটিতে প্রায় ১১ মাস কোনো সরকার নেই। নেই প্রধানমন্ত্রী, প্রেসিডেন্ট। এতে রাজনৈতিক অচলাবস্থা আরও গভীর হয়েছে।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments