Sunday, July 14, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ চীনের

ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ চীনের

এক বছর ধরে চলমান ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বেইজিং। মঙ্গলবার এ কথা জানিয়ে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং বলেছেন, দৃশ্যত এই যুদ্ধ এত তীব্র হয়ে উঠেছে যে, তা নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে। দেশটির শীর্ষ কূটনীতিক ওয়াং ই মস্কোর পথে রওনা হওয়ার আগে এই সমস্যা সমাধানে আলোচনার ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা। উল্লেখ্য, গত বছর ২৪শে ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আগ্রাসন চালায় রাশিয়া। তার অল্প আগে মস্কোর সঙ্গে ‘সীমাহীন’ অংশীদারিত্ব গড়ে তোলে বেইজিং। এমনকি তারা রাশিয়ার বিরুদ্ধে ‘আগ্রাসন’ শব্দটির ব্যবহার এড়িয়ে যায়। রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিন্দা প্রকাশ থেকে দূরে থাকে। 

রাশিয়াকে যদি সামরিক সহায়তা দেয় চীন, তাহলে কঠোর পরিণতির হুঁশিয়ারি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু এমন সহায়তা দেয়ার কথা সোমবার প্রত্যাখ্যান করেছে বেইজিং। বেইজিংয়ে বৈশ্বিক নিরাপত্তা বিষয়ক ল্যান্টিং ফোরামে বক্তব্যকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং বলেছেন- অবিলম্বে আগুনে জ্বালানি সরবরাহ বন্ধের জন্য সুনির্দিষ্ট দেশগুলোর প্রতি আমরা আহ্বান জানাই।

তিনি জোর দিয়ে বলেন, আলোচনা ও শলাপরামর্শের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সঙ্গে কাজ করতে পারে চীন। সব পক্ষের সমস্যা নিয়ে আলোচনা হতে পারে। তাতে অভিন্ন নিরাপত্তা খোঁজা যেতে পারে। চীনের শীর্ষ কূটনীতিক ওয়াং ই মস্কো সফরে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আলোচনা করতে পারেন। রাষ্ট্রীয় মিডিয়ায় বলা হয়েছে, এই সাক্ষাতে সর্বোচ্চ এজেন্ডায় থাকতে পারে ইউক্রেন যুদ্ধ। তিনি সোমবার হাঙ্গেরি সফর করেন। এ সময় তিনি এই যুদ্ধ সমাধানের জন্য আলোচনার আহ্বান জানান। 

ওয়াং ই বলেন, ইউরোপে একটি শান্তিপূর্ণ এবং টেকসই ফ্রেমওয়ার্ক নিয়ে রাজনৈতিক সমাধান পছন্দ করি আমরা। তিনি আরও বলেন, বিশৃংখলা এবং যুদ্ধে বীতশ্রদ্ধ বিশ্ব। শান্তিপ্রিয় দেশগুলোর উচিত বর্তমানের এই শত্রুতাকে যত দ্রুত সম্ভব সমাধান করা। 

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments