Tuesday, May 28, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকইউক্রেনে রুশ হামলার তৃতীয় দিন : সর্বশেষ পরিস্থিতি

ইউক্রেনে রুশ হামলার তৃতীয় দিন : সর্বশেষ পরিস্থিতি

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনে চলছে রাশিয়ার সর্বাত্মক হামলা। আজ হামলার তৃতীয় দিন। সর্বশেষ পরিস্থিতি :

► রাশিয়ার কমিউনিকেশনস রেগুলেটর শনিবার দেশটির গণমাধ্যমগুলোকে ইউক্রেনে মস্কোর হামলাকে ‘হামলা’, ‌’আক্রমণ’ বা ‘যুদ্ধ ঘোষণা’ বলে উল্লেখ করা প্রতিবেদনগুলো সরিয়ে ফেলার আহবান জানিয়েছে।  

► বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) প্রধান এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালা শুক্রবার ইউক্রেনে যুদ্ধের ‘অর্থনৈতিক প্রভাব’ সম্পর্কে সতর্ক করে বলেছেন, ইউক্রেন একটি প্রধান গম রপ্তানিকারক দেশ।

সেখানে যুদ্ধের কারণে বিশ্বজুড়ে ক্রেতারা ক্ষতিগ্রস্ত হবে। আইএমএফের প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভার সঙ্গে একটি ভার্চুয়াল ইভেন্টে তিনি বলেন, ‘সাধারণ মানুষের জন্য গমের দাম এবং রুটির দামের ক্ষেত্রেও একটি বড় প্রভাব পড়তে চলেছে। ‘

► রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে দীর্ঘমেয়াদী যুদ্ধের জন্য বিশ্বকে প্রস্তুত থাকতে হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ । শনিবার ফ্রান্সের বার্ষিক কৃষি মেলায় ম্যাক্রোঁ বলেন, ‘আজ সকালে আপনাকে একটি জিনিস যদি বলতে হয় তবে তা হলো এই যুদ্ধ স্থায়ী হবে…. এই সঙ্কট স্থায়ী হবে, এই যুদ্ধ স্থায়ী হবে। এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সব সংকটের দীর্ঘস্থায়ী পরিণতি হবে। … আমাদের অবশ্যই প্রস্তুত থাকতে হবে। ‘

► ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি রাশিয়াকে সুইফট ব্যাংকিং ব্যবস্থা থেকে নিষিদ্ধ করার পদক্ষেপে সমর্থন দেওয়ার জন্য জার্মানি ও হাঙ্গেরির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি অনলাইনে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে বলেছেন, ‘রাশিয়াকে সুইফট থেকে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার ইতিমধ্যেই ইইউর দেশগুলোর প্রায় সম্পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। আমি আশা করি জার্মানি ও হাঙ্গেরি এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করার সাহস পাবে। ‘ প্রসঙ্গত জার্মানি-হাঙ্গেরিসহ ইউরোপের প্রায় ১২টি দেশের প্রাকৃতিক গ্যাসের চাহিদার ৭৫ শতাংশ রাশিয়া সরবরাহ করে। সুইফট থেকে রাশিয়াকে বাদ দিলে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে

► কিয়েভ কর্তৃপক্ষ শনিবার শহরে কারফিউ আদেশ কঠোর করে বলেছে, এই আদেশ লঙ্ঘনকারীদের শত্রু ও নাশকতাকারী হিসেবে বিবেচনা করা হবে। কিয়েভের মেয়র ভিটালি ক্লিটসকো বলেছেন, রাজধানীর প্রতিরক্ষা উন্নত করতে শনিবার এবং সোমবারের মধ্যে স্থানীয় সময় বিকেল পাঁচটা থেকে সকাল চারটা পর্যন্ত কারফিউ বাড়ানো হবে।

► পোল্যান্ডের উপ-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পাওয়েল সেফের্নাকার শনিবার বলেছেন, রাশিয়ার হামলার শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ইউক্রেন থেকে প্রায় এক লাখ মানুষ সীমান্ত পেরিয়ে পোল্যান্ডে প্রবেশ করেছে।

► ইউক্রেনের সেনারা রাজধানী কিয়েভে রাশিয়ার বাহিনীর সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। এর আগে প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ভোরের আগেই কিয়েভ দখলের চেষ্টা করবে রুশ বাহিনী। এর আগে জেলেনস্কি কিয়েভের কেন্দ্রস্থল থেকে একটি সংক্ষিপ্ত ভিডিও প্রকাশ করে বলেছেন, ‌’আমি এখানে…। এটি আমাদের ভূমি। আমাদের দেশ। আমাদের শিশু এবং আমরা এই সব রক্ষা করব। ‘

► রাশিয়া শনিবার বলেছে, তার বাহিনী ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে ইউক্রেনের সামরিক অবকাঠামোতে বোমাবর্ষণ করছে।

► ইউক্রেনের বেসামরিক ব্যক্তিরা যাদের মধ্যে কেউ কেউ আগে কখনো বন্দুক ধরেনি তারাও রুশ ট্যাংকের সামনে যুদ্ধে নেমে পড়েছে বলে এএফপির খবরে বলা হয়েছে। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তাদের ‘মলোটভ ককটেল (পেট্রলবোমা) তৈরি করে’ তাই নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানিয়েছে।

► ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার নিন্দা জানাতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের যুক্তরাষ্ট্রের আনা একটি খসড়া প্রস্তাবে ভেটো দিয়েছে রাশিয়া। ভোটদানে বিরত ছিল চীন, ভারত ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। শুক্রবার নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সদর দপ্তরে ওই প্রস্তাব তোলা হয়। এর পক্ষে ১১টি ভোট পড়লেও পরিষদের স্থায়ী সদস্য রাশিয়ার ভেটোর ফলে তা পাস হয়নি। প্রস্তাবের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া ভোট দিয়েছিল যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, নরওয়ে, আলবেনিয়া, আয়ারল্যান্ড, মেক্সিকো, ব্রাজিল, কেনিয়া, ঘানা ও গ্যাবন। প্রস্তাব পাস করাতে না পারলেও একে নিজেদের ‘বিজয়’ হিসেবেই দেখছে পশ্চিমা বিশ্ব। এর মাধ্যমে রাশিয়ার আন্তর্জাতিক বিচ্ছিন্নতা প্রকাশ পেয়েছে বলে মনে করছে তারা।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments