Wednesday, June 12, 2024
spot_img
Homeধর্মআলেম-ওলামার দোয়া ও শুভেচ্ছা

আলেম-ওলামার দোয়া ও শুভেচ্ছা

২৩ বছরে যাত্রা শুরু করেছে দৈনিক যুগান্তর। শূন্য দশকের গোড়ায় সংবাদের বৈচিত্র্যের সঙ্গে পত্রিকার জগতে ভিন্ন মাত্রা যোগ করে সপ্তাহে দুদিন চার রঙের ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতা প্রকাশ করে যুগান্তর। সংবাদপত্রের জগতে যা এক ইতিহাস। সাধারণ পাঠকের পাশাপাশি যুগান্তরের ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতা দেশের শীর্ষ আলেমদেরও মন জুগিয়েছে। যুগান্তর ২৩ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে তারা শুভেচ্ছা ও দোয়া জানিয়েছেন যুগান্তর পরিবারকে। টেলিফোনে ও সরাসরি তাদের মতামত নিয়েছেন-তোফায়েল গাজালি ও তানজিল আমির

ধর্মের প্রতি লক্ষ রেখে কাজ করতে হবে

আল্লামা সুলতান যওক নদভী

প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক, জামেয়া দারুল মা’আরিফ আল-ইসলামিয়া, চট্টগ্রাম, সভাপতি, আঞ্জুমানে ইত্তেহাদুল মাদারিস, বাংলাদেশ

দেশের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম দৈনিক যুগান্তর ২৩ বছরে পদার্পণ করছে শুনে আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করছি। জ্ঞানার্জনের মাধ্যম হিসাবে মানুষকে দ্বীন সম্পর্কে জানার সুযোগ করে দেওয়া পত্রিকা কর্তৃপক্ষের অন্যতম দায়িত্ব। আলহামদুলিল্লাহ, দেশের যেসব গণমাধ্যম মানুষের ধর্মীয় এ চাহিদা পূরণে এগিয়ে এসেছে যুগান্তর তাদের অন্যতম প্রথিকৃত। পত্রিকাটি শুরু থেকে ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতা বের করছে। আমার জানামতে, যুগান্তরের ইসলাম ও জীবন বিভাগে যারা কাজ করেন, তারা হক্কানি আলেমদের সঙ্গে সম্পর্ক রাখেন এবং পাতাটির ব্যাপারে হক্কানি আলেমদের ভালো ধারণাও আছে। আমি আশা করি, ভবিষ্যতেও তারা হক্কানি আলেমদের সঙ্গে পরামর্শ করে এবং মুসলমানের দ্বীনি প্রয়োজনের প্রতি লক্ষ রেখে কাজ করবেন। যুগান্তর পত্রিকা ও এর সংশ্লিষ্ট সবার জন্য আমার দোয়া রইল।

ইসলাম প্রচারে অগ্রণী ভূমিকা থাকতে হবে

আল্লামা মাহমুদুল হাসান

চেয়ারম্যান, আলহাইআতুল উলয়া লিল-জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশ, খতিব, গুলশান সেন্ট্রাল মসজিদ,

গণমাধ্যম দাওয়াতের বিশাল বড় একটি হাতিয়ার। ইসলামেও তাই গণমাধ্যমকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। রাসূল (সা.) বলেছেন, ‘তোমরা প্রত্যেকেই দায়িত্বশীল এবং প্রত্যেকেই তার দায়িত্ব সম্পর্কে জিজ্ঞাসিত হবে।’ তাই পত্রিকা কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব হলো মানুষকে দ্বীন ও ইসলাম সম্পর্কে জানার সুযোগ করে দেওয়া। আলহামদুলিল্লাহ, ইসলাম ও জীবন পাতার মাধ্যমে যুগান্তর পত্রিকা সে দায়িত্ব আদায়ের চেষ্টা করছে। বিশেষভাবে ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতা আলেমদের মর্যাদা, ইমাম-খতিবদের দায়িত্ব নিয়েও লেখালেখি করে। এটি অবশ্যই প্রশংসনীয় বিষয়। আমরা আশা করব, আহলে সুন্নত ওয়াল জামায়াতের মতাদর্শে যুগান্তর আরও এগিয়ে যাবে। আমি দোয়া করি, বাংলাদেশের মানুষের ধর্মীয় মূল্যবোধকে গুরুত্ব দিয়ে কুরআন-সুন্নাহর প্রচারে ‘ইসলাম ও জীবন’ অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

চিরন্তন সত্যকে সহজভাবে তুলে ধরতে হবে

আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ

গ্র্যান্ড ইমাম, শোলাকিয়া ঈদগাহ, প্রিন্সিপাল ও শায়খুল হাদিস জামিয়া ইকরা বাংলাদেশ

যুগের মননের পরিপ্রেক্ষিতে ইসলামকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কারণ ইসলামের চিরন্তন সত্যকে সহজভাবে তুলে ধরতে না পারলে যুগ ইসলামকে বুঝবে না। ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতার মাধ্যমে যুগান্তর সে গুরু দায়িত্ব পালন করে আসছে। যুগান্তর স্বাধীনতার পক্ষের একটি কাগজ। তাই মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের মাঝে স্বাধীনতার চেতনা উজ্জীবিত করার ক্ষেত্রেও তারা অসাধারণ ভূমিকা রেখেছে।

বিজয় দিবসসহ রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন দিবস নিজেদের মতো করে পালনে মাদ্রাসাপড়ুয়ারা উদ্বুদ্ধ হয়েছে ইসলাম ও জীবনের মাধ্যমে। এ দেশের কওমি আলেমদের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি কওমি শিক্ষা সনদের স্বীকৃতির পেছনেও রয়েছে যুগান্তরের বেশ ভূমিকা। ইসলামকে যুগোপযোগী ও আধুনিক ধর্ম হিসাবে বাংলা ভাষাভাষীদের কাছে উপস্থাপনে যুগান্তরের ‘ইসলাম ও জীবন পাতা’ বিশেষ ভূমিকা রেখেছে। আমি প্রাণভরে দোয়া করছি-যুগান্তরের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে যেন আল্লাহ আরও ভালো কাজের তাওফিক দেন।

যুগান্তরের ভূমিকা প্রশংসনীয়

মো. ফরিদুল হক খান এমপি

প্রতিমন্ত্রী, ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়

২২ পেরিয়ে ২৩ বছরে পা রেখেছে দৈনিক যুগান্তর। এ দীর্ঘ সময়ে দেশের ধর্মপ্রমাণ মানুষের কাছে অত্যন্ত ভালোবাসার একটি আসন করে নিয়েছে যুগান্তরের ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতা। ইসলামের ইতিহাস, সভ্যতা-সংস্কৃতি তুলে ধরার ক্ষেত্রে যুগান্তরের ভূমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। মননশীল আলেম লেখক তৈরি ও নবীনদের পৃষ্ঠপোষকতায় তাদের ভূমিকা রয়েছে। ইসলামের মৌলিক জ্ঞান, ইসলাম ও বিজ্ঞানের সামঞ্জস্য প্রমাণসহ গবেষণাধর্মী বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কাজ করে তারা সব শ্রেণির পাঠকের মন জয় করেছে। সব ভেদাভেদ ও বিতর্ক ভুলে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে তারা ভূমিকা রাখছে। পাঠকের দোয়া ও ভালোবাসায় এগিয়ে যাবে যুগান্তর। ইসলাম ও জীবন পাতার মাধ্যমে পাঠকের অন্তরজুড়ে ছড়িয়ে পড়ুক সত্যের আলো। দৈনিক যুগান্তরের আগামীর পথচলা সফল ও সুন্দর হোক-এ শুভ কামনা করছি।

ইসলামের আলো ছড়িয়ে দিতে হবে

আল্লামা মুহাম্মাদ ইয়াহইয়া

মহাপরিচালক, দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসা, চট্টগ্রাম

আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ ইসলামপ্রিয়। খোদভীরুতা তাদের চেতনে-অবচেতনে কাজ করে। কিন্তু ইসলামের প্রকৃত বিধানাবলি তাদের জানা না থাকায় ভুল পথে পা বাড়ানোর প্রবণতাও অনেক বেশি। তাই যত বেশি তাদের কাছে ইসলামের বাণী পৌঁছে দেওয়া যাবে, দেশে ইসলামের আলো তত বেশি ছড়িয়ে পড়বে। এ ক্ষেত্রে গণমাধ্যমের ভূমিকা অনেক বেশি। গণমাধ্যমই পারে মানুষের দ্বারে দ্বারে ইসলামের সঠিক মর্মকথা পৌঁছে দিতে। জনপ্রিয় সংবাদপত্র দৈনিক যুগান্তর নিয়মিত ধর্মীয় পাতা প্রকাশ করে ইসলামের মহান একটি খেদমত আঞ্জাম দিচ্ছে শুনে আমি অত্যন্ত খুশি হয়েছি। এর মাধ্যমে পত্রিকাটি গণমানুষের তথ্য চাহিদা পূরণের পাশাপাশি ধর্মীয় চাহিদাও পূরণ করে জাতির মাঝে দ্বীনি চেতনা উজ্জীবিতকরণে অবদান রেখে যাচ্ছে। যুগান্তরের ২৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আমার দোয়া ও শুভেচ্ছা রইল।

যুগান্তরের আগামীর পথচলা যেন সুন্দর ও সুগম হয়

সাইয়্যেদ আনোয়ার হোসাইন তাহিরি জাবিরী আল মাদানী

খতিব, আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদ, চট্টগ্রাম

যুগান্তর আমি পড়ি। ভালো ও সত্যনিষ্ঠ খবরগুলো যুগান্তরের মাধ্যমে আমরা পেয়ে থাকি। ২২ বছর ধরে যুগান্তর দেশের সচেতন পাঠকদের কাছে জনপ্রিয় একটি পত্রিকা। আধুনিক গণমাধ্যমে ইসলাম পাতার পথিকৃৎ বলা চলে দৈনিক যুগান্তরকে। জাতীয় গণমাধ্যমের এ ধর্মীয় পাতাটি সব মত ও পথের মানুষকে ইসলামের বন্ধনে একীভূত করার চেষ্টা করে থাকে সব সময়। আমি আল্লাহর কাছে দোয়া করি, যুগান্তরের আগামীর পথচলা যেন সুন্দর ও সুগম হয়।

ধর্মীয় শিক্ষা ও সংস্কৃতির প্রতি উদ্বুদ্ধ করে যুগান্তর

অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আব্দুর রশীদ

অধ্যাপক, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ, প্রধ্যক্ষ, কবি জসীমউদ্দীন হল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

বাংলাদেশের মূলধারার গণমাধ্যমগুলোর মধ্যে দৈনিক যুগান্তর অন্যতম একটি পত্রিকা। পত্রিকাটির ‘ইসলাম ও জীবন পাতা’ সমসাময়িক ইসলামী বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তত্ত্ব ও তথ্যবহুল ফিচার প্রকাশ করে থাকে। পত্রিকাটি পাঠকদের ইসলামী জ্ঞানে সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি তাদের ইসলাম পালনে উদ্বুদ্ধ করে থাকে। এ কারণে ‘ইসলাম ও জীবন পাতা’ ইসলামপ্রিয় পাঠকদের রুচি-মন-মননে স্থান করে নিয়েছে। পত্রিকাটি ২২ পেরিয়ে ২৩ বছরে পা রাখছে। সত্য, সুন্দরের সঙ্গে তাদের এ পথচলায় সংশ্লিষ্ট সবার জন্য রইল প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

মানবতাবোধের শিক্ষা ছড়িয়ে দিতে হবে

সাইয়্যিদ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী

সাজ্জাদানশীন ও মোন্তাজেম, দরবারে গাউছুল আযম মাইজভাণ্ডারী, মাইজভাণ্ডার দরবার শরিফ, ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম।

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাপুষ্ট দৈনিক যুগান্তরের ২৩ বছরে পদার্পণ উপলক্ষ্যে আমি আনন্দিত। এ পত্রিকার সব আয়োজন, উদ্যোগকে আমি স্বাগত জানাচ্ছি।

ইসলাম সার্বজনীন বিশ্ব ধর্ম। সর্বস্তরের মানুষের জন্য জীবনধর্ম হিসাবে ইসলামের আবেদন অপরিসীম। সামাজিক অবক্ষয়, দুর্নীতি, জঙ্গিবাদ, মাদকমুক্ত জাতি গঠনে এবং সামাজিক অসঙ্গতিগুলো তুলে ধরার ক্ষেত্রে দেশপ্রেম, সাংবাদিক ও সংবাদপত্রের ভূমিকা সর্বকালেই অগ্রগামী। বহুল প্রচারিত দৈনিক যুগান্তর বস্তুনিষ্ট সংবাদ প্রচার করে আসছে ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আমি আশা করছি। যুগান্তরের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে আমি বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি (বিএসপি) ও অসাম্প্র্রদায়িক চেতনাপুষ্ট মাইজভাণ্ডার দরবার শরিফের পক্ষ থেকে জানাই আন্তরিক মোবারকবাদ।

সার্বজনীনভাবে ইসলামকে তুলে ধরে যুগান্তর

মুফতি সৈয়দ রেজাউল করিম, পীর সাহেব চরমোনাই

আমীর, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

ইসলাম সামগ্রিক একটি জীবনব্যবস্থা, শুধু আচারসর্বস্ব কিছু ক্রিয়া পালনের ধর্ম নয়। এতে মানবজীবনের সব বিষয়ে পূর্ণ নির্দেশনা দেওয়া আছে। বিষয়গুলো বাঙালি মুসলমানদের সামনে সহজভাবে ফুটিয়ে তোলার ক্ষেত্রে যুগান্তরের ‘ইসলাম ও জীবন’ বিভাগের বেশ অবদান রয়েছে। নিয়মিত না হলেও আমি পাতাটি দেখার চেষ্টা করি। সার্বজনীনভাবে ইসলামকে সবার সামনে তুলে ধরার ক্ষেত্রে যুগান্তরের ধর্ম পাতা নীরব একটি চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি আলেমদেরও নজরে এসেছে। হক্কানি আলেমদের পরামর্শ নিয়ে জাতির কল্যাণে যুগান্তর আরও নিবেদিত হবে, এ প্রত্যাশাই থাকবে।

অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের প্রতিধ্বনি

মাওলানা মুহাম্মদ মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী

পেশ ইমাম ও ভারপ্রাপ্ত খতিব, জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম

প্রথম শ্রেণির একটি কাগজ হিসাবে যুগান্তর সর্ব মহলেই সমাদৃত। যুগান্তরের ইসলাম বিভাগও ধর্মপ্রাণ মানুষের মাঝে বেশ জনপ্রিয়। ধর্মীয় সম্প্র্রীতি রক্ষা বিশেষত অসাম্প্রাদায়িক একটি বাংলাদেশ বিনির্মাণে যুগান্তরের ভূমিকা অনন্য। মানুষকে কীভাবে প্রকৃত ইসলামের আলোয় আলোকিত করা যায়, কীভাবে পথহারাদের সঠিক পথের দিশা দেওয়া যায়, কীভাবে সন্তানদের ধর্মীয় উত্তম শিক্ষায় শিক্ষিত করা যায়, এক কথায় সুন্দরভাবে জীবন পরিচালনার জন্য যার যা প্রয়োজন তা শুরু থেকেই এ পাতার প্রতিটি লেখায় স্থান পেত। এ ছাড়া রমজানজুড়ে থাকে এর বিশেষ আয়োজন। ২২ পেরিয়ে ২৩ বছরে পা রেখেছে দৈনিক যুগান্তর। আশা করব, ধর্মীয় মূল্যবোধ ও দেশপ্রেমের চেতনায় যুগান্তর এগিয়ে যাবে। বিশেষত ইসলাম ও জীবন পাতায় গবেষণামূলক কার্যক্রমের পাশাপাশি তরুণদের পৃষ্ঠপোষকতাও অব্যাহত রাখবে।

দ্বীন প্রচারে যুগান্তরের ভূমিকা ঈর্ষণীয়

মুফতি মুবারকুল্লাহ

বিশিষ্ট আলেম, লেখক, গবেষক, প্রিন্সিপাল, জামিয়া ইউনুছিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া

২২ পেরিয়ে ২৩ বছরে পদার্পণ করছে দৈনিক যুগান্তর। এ দীর্ঘ পথচলায় অত্যন্ত পরিমিত দৃষ্টিভঙ্গির আলোকে দেশ ও ধর্মের কথা বলে গেছে কাগজটি। বিশেষ করে ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতাটি বাংলা ভাষাভাষী মুসলমানদের কাছে কুরআন সুন্নাহের শাশ্বত বাণী যুগের ভাষায় পৌঁছে দিতে ঈর্ষণীয় ভূমিকা পালন করেছে। আমি আশা করি পাতাটি দিনদিন আরও সমৃদ্ধ হবে এবং ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মনন গঠনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাবে। দোয়া ও শুভেচ্ছা রইল যুগান্তরের প্রতি।

আলেমদের পৃষ্ঠপোষকতা অব্যাহত থাকুক

মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী

ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান ও জামিয়া হোসাইনিয়া আশরাফুল উলূম বড়কাটারা মাদ্রাসার সদরে মুহতামিম

যুগান্তর আমার কাছে সব সময় একটি প্রিয় নাম। ‘সত্যের সন্ধানে নির্ভীক’ স্লোগানে ২২ বছর আগে পথচলা শুরু হয়েছিল পত্রিকাটির। প্রথম শ্রেণির একটি জাতীয় পত্রিকা হিসাবে যুগান্তর সর্বমহলেই আজ সমাদৃত। বস্তুনিষ্ঠ ও নিরপেক্ষ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে যুগান্তর পাঠকদের মনে জায়গা করে রেখেছে সব সময়। পত্রিকাটির ‘ইসলাম ও জীবন বিভাগ’ আমার অসম্ভব প্রিয়। আশা করব, অদূর ভবিষ্যতে ধর্মীয় মূল্যবোধ ও দেশপ্রেমের চেতনায় যুগান্তর আরও সামনে এগিয়ে যাবে। বিশেষত ইসলাম ও জীবন পাতায় গবেষণামূলক কার্যক্রমের পাশাপাশি কওমি তরুণদের পৃষ্ঠপোষকতাও অব্যাহত রাখবে। পত্রিকাটির সঙ্গে যারা জড়িত সবাইকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা।

ধর্মীয় মূল্যবোধ ও দেশপ্রেমের বার্তাবাহী যুগান্তর

মাওলানা বাহাউদ্দিন জাকারিয়া

মুহতামিম, জামিয়া হোসাইনিয়া ইসলামিয়া আরজাবাদ, মিরপুর, ঢাকা, সহসভাপতি, বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড (বেফাক)

যুগের চাহিদা অনুযায়ী ইসলামকে গণমানুষের কাছে উপস্থাপন করা দাওয়াতের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। কুরআন হাদিসের নির্দেশনা অনুযায়ী সহজভাবে সময়ের ভাষায় মানুষের কাছে ইসলামের প্রকৃত শিক্ষা ও আদর্শ উপস্থাপনে বিগত ২২ বছর ধরে নিরলসভাবে কাজ করছে যুগান্তরের ইসলাম ও জীবন পাতাটি। ২৩ বছরে পদার্পণের এ মাহেন্দ্রক্ষণে যুগান্তর পরিবারের সবাইকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। কওমিপড়ুয়া প্রচুর লেখক সাংবাদিক যুগান্তর থেকে উঠে এসেছেন। আমি দোয়া করি ধর্মীয় মূল্যবোধ ও দেশপ্রেমের চেতনা ধারণ করে যুগান্তর আরও বহুদূর এগিয়ে যাক। আল্লাহ রব্বুল আলামিন এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে ইসলাম ও মানবতার কল্যাণে আরও অনেক বেশি খেদমত করার তাওফিক দান করুন। আমিন

সত্য ও সুন্দরের যাত্রা অব্যাহত রাখতে হবে

মাওলানা ড. গোলাম মহিউদ্দিন ইকরাম

মহাসচিব, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ

দেশের বহুল প্রচারিত দৈনিক যুগান্তর ২৩ বছরে পদার্পণ করেছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের অতন্দ্র প্রহরী হয়ে কাজ করছে যুগান্তর। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে ইসলাম, দেশ ও মানবতার কল্যাণে যুগান্তরের ব্যতিক্রমী সব আয়োজন সব সময়ই বুদ্ধা মহলের দৃষ্টি কেড়েছে। সত্য ও সুন্দরের এ ধারা অব্যাহত থাকবে আমরা আশাবাদী। যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মরহুম নুরুল ইসলাম ছিলেন বাংলাদেশের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। মিডিয়া জগতে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করেছেন তিনি। যুগান্তর সপ্তাহে দুই দিন ইসলাম ও জীবন নামে ইসলামি পাতা করে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। আমার জানামতে বাংলাদেশের কোনো দৈনিক এর আগে এ আয়োজন করেনি এভাবে। এ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সম্পাদক, প্রকাশক, সাংবাদিক, পাঠক, গুণিজন ও শুভানুধ্যায়ীকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানাচ্ছি।

ইসলামের সেবায় যুগান্তরের ভূমিকা অনুকরণীয়

মাওলানা যাইনুল আবেদীন

সব্যসাচী লেখক ও গবেষক আলেম

আমরা যতটুকু জানি যুগান্তরই প্রথম নিয়মিত চার কালার ইসলামবিষয়ক পাতা প্রকাশ করতে শুরু করে। একই সঙ্গে এ পাতাকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের তরুণ আলেমদের মধ্যে একটি বড় কাফেলা লেখালেখির সুযোগ পায়। তারা রাষ্ট্রের ব্যাপকতর প্রাঙ্গণে দ্বীনের পরিচ্ছন্ন দাওয়াতের অঙ্গনে পা রাখার সুযোগ পান যুগান্তরের হাত ধরে। এ দেশের আলেম সমাজের জন্য এটি একটি বড় আগ্রহের জায়গা।

আমি যতটুকু জানি এ সময়ে আমাদের দেশে এমন অনেক তরুণ বাংলাভাষায় ইসলামচর্চার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় অবস্থান করছেন যারা একদা যুগান্তরে লেখালেখির মাধ্যমেই এ সেক্টরে উঠে এসেছেন। আমি আশা করছি দৈনিক যুগান্তর ভবিষ্যতে তাদের এই শুভ, সচেতন এবং চৌকশ ধারাটিকে অব্যাহত রাখবে এবং এ দেশের মানুষের বিশ্বাস ও আস্থায় তারা আজীবন সম্মানিত হয়ে থাকবে।

যুগান্তরের অবদান অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে

মাওলানা মুসলেহ উদ্দীন আহমদ গহরপুরী

প্রিন্সিপাল, জামেয়া ইসলামিয়া হোসাইনিয়া গহরপুর, সিলেট, সহসভাপতি, বাংলাদেশ কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড (বেফাক)

বাংলাদেশের ধর্মপ্রাণ মানুষের মনন গঠনে বেশ সচেতনতা ও তৎপরতার সঙ্গেই কাজ করেছে যুগান্তরের ইসলাম ও জীবন বিভাগ। জাতীয় গণমাধ্যমের এ ধর্মীয় পাতাটি সব মত ও পথের মানুষকে ইসলামের বন্ধনে একীভূত করার চেষ্টা করে থাকে সব সময়। ২২ পেরিয়ে তেইশে পা দিচ্ছে দেশের প্রতিশ্রুতিশীল ও মননশীল পত্রিকা দৈনিক যুগান্তর। এ পাতায় লিখতে লিখতে নীরবে গড়ে উঠেছে একঝাঁক আলেম লেখক। লেখকদের বলা হয় সমাজের মুখপাত্র। যুগান্তর এ দেশের মুসলমানদের মুখপাত্র হিসাবে এসব আলেম লেখকদের তৈরি করার চেষ্টা করেছে। যারা এখন বিভিন্ন দৈনিকের ইসলাম পাতা সম্পাদনা করছে, লেখালেখির অঙ্গনে দ্যুতি ছড়াচ্ছে। যুগান্তরের এ অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে যুগ থেকে যুগান্তর।

দাওয়াতের মাধ্যম হিসাবে কাজ করছে যুগান্তর

মাওলানা মুজিবুর রহমান

মুহতামিম, তেজগাঁও জামিয়া ইসলামিয়া, ঢাকা

যুগান্তর দেশ, স্বাধীনতা ও মানবতার পক্ষে কথা বলে। দৈনিক যুগান্তরের ২৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের অতন্দ্রপ্রহরী, ইসলাম ও মুসলিম উম্মাহর পক্ষে বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর দৈনিক যুগান্তর তার দীর্ঘ পথচলায় যে সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে, তা বিরল।

কুরআন-সুন্নাহের শাশ্বত বাণী যুগের ভাষায় মানুষের সামনে পৌঁছে দিতে যুগান্তরের ইসলাম ও জীবন পাতা অনন্য অবদান রেখে চলছে। যুগান্তর শুধু একটি সংবাদমাধ্যমই নয় বরং দ্বীনি দাওয়াতের বাহক হিসাবে কাজ করে আসছে। আমরা যুগান্তরের সার্বিক কল্যাণ ও সমৃদ্ধি কামনা করছি। বিশেষত মাদ্রাসাপড়ুয়া তরুণ লেখকরা এখানে যে সুযোগ পেয়েছে, আমার জানামতে অন্য কোনো পত্রিকা এ সুযোগটি দিতে পারেনি। এ জন্য আমি আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাই।

ধর্মপ্রাণ মানুষের আস্থার শীর্ষে যুগান্তর

মাওলানা জয়নাল আবেদীন

খতিব, সেন্ট্রাল মস্ক, ব্লাকপুল, ইউকে

আলোকিত সমাজ গঠনে গণমাধ্যমের বিশাল ভূমিকা রয়েছে। প্রবাসে থেকেও আমরা দেশের ইতিবাচক সংবাদগুলো মিডিয়ার মাধ্যমে পেয়ে থাকি। বিশ্বস্ততায় দৈনিক যুগান্তর আস্থার শীর্ষে রয়েছে। ২৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে পাঠকের আস্থা ও ভালোবাসায় দৈনিক যুগান্তরের পথচলা সাফল্যে ভাস্বর হোক সে কামনা করি। ‘ইসলাম ও জীবন’ পাতাটি আমার কাছে অত্যন্ত প্রিয়। মুসলিম সভ্যতা ও সংস্কৃতির বিকাশে যুগান্তরের ইসলাম পাতার অবদান পৃথিবীর ইতিহাসে সোনালি হরফে লেখা থাকবে। আল্লাহ আমাদের সবাইকে কবুল করুন। ইহ-পরকালীন যাবতীয় কল্যাণ দান করুন। আমিন

মসৃণ ও বিস্তৃত হোক যুগান্তরের পথচলা

মুফতি জহির ইবনে মুসলিম

শাইখুল হাদিস, গাওয়াইর মাদ্রাসা, সভাপতি বাংলাদেশ মাদ্রাসা কল্যাণ পরিষদ

প্রতিশ্রুতিশীল কাগজ যুগান্তর ২২ পেরিয়ে ২৩-এ পদার্পণ করছে। শুভেচ্ছা ও আন্তরিক অভিনন্দন যুগান্তর পরিবারকে। মতিঝিলের সেই টিনশেড থেকে কুড়িল বারিধারা দালান ঘরে। এ দীর্ঘ সময়ে লেখক ও পাঠক হিসাবে প্রিয় কাগজ যুগান্তরের সঙ্গে রয়েছে আমার বহু স্মৃতি। ইসলাম ও জীবন পাতার মাধ্যমে যুগান্তর প্রচার করেছে ইসলামি দৃষ্টিকোণ থেকে স্বাধীনতার কথা, মাতৃভাষা, বিজয় দিবস, জাতীয় পতাকা, দেশপ্রেম, আলেম সমাজের মর্যাদা, ইসলামি শিক্ষা ও সংস্কৃতির কথা। ইসলাম ও জীবন পাতার মাধ্যমে যুগান্তর তৈরি করেছে বহু মননশীল আলেম লেখক। কওমি সনদের স্বীকৃতির ক্ষেত্রে যুগান্তরের রয়েছে বড় ভূমিকা। মসৃণ ও বিস্তৃত হোক যুগান্তরের পথচলা আজকের দিনে এটা একান্ত প্রত্যাশা।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments