Saturday, July 2, 2022
spot_img
Homeবিনোদনআমির খানের যে আচরণে কষ্ট পেয়েছিলেন রানী মুখার্জি

আমির খানের যে আচরণে কষ্ট পেয়েছিলেন রানী মুখার্জি

নব্বইয়ের দশকে বলিউড কাঁপানো নায়িকার নাম রানী মুখার্জি। ‘গোলাম’ ও করণ জোহর পরিচালিত ‘কুচ কুচ হোতা হ্যায়’ সিনেমায় অভিনয়ের পর পরই তারকাখ্যাতি পেয়ে যান রানী। 

বলিউডে রোমান্টিক চলচ্চিত্রের প্রসঙ্গ এলেই যেন রানী মুখার্জির সঙ্গে অন্য অভিনেতার রসায়নের কথা বলতেই হয়। যদিও শুরুতে অভিনেত্রী হওয়ার বাসনা ছিল না রানীর। বরং বলেছিলেন, তার মা তাকে ফুঁসলিয়ে অভিনয়ে নামিয়েছেন! কিন্তু একবার বলিউডের রঙিন জগতে পা রাখার পর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি রানীকে।

প্রায়ই নানা সাক্ষাৎকারে সোনালি দিনগুলোর স্মৃতিচারণ করেন রানী। সিমি গারেওয়ালকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রানী জানান, বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে ভালো রকম যোগসূত্র থাকার পরও শুরুতে তিনি অভিনয়ের মৌলিক বিষয়গুলোই জানতেন না। এমনকি পর্দায় প্রথমবার উপস্থিতি এতটাই বাজে হয়েছিল যে, অভিনেত্রীর মা নিজেই প্রযোজককে বলেছিলেন, রানীকে যেন অভিনয়ে না নেওয়া হয়!

শুরুর দিকের কিছু ব্যর্থতার পর নব্বইয়ের দশকে ‘গোলাম’ চলচ্চিত্রে জুটি বাঁধেন আমির খানের সঙ্গে এবং ছবিটি ব্যবসাসফল হয়। একই সাক্ষাৎকারে রানী মুখার্জি বলেন, আমির খানের সঙ্গে তার একটি মজার অভিজ্ঞতাও আছে। কিশোরী বয়সে আমির খান ও শাহরুখ খানের ভক্ত ছিলেন তিনি। তাই একদিন আমিরের অটোগ্রাফ নিতে গিয়েছিলেন ‘লাভ লাভ লাভ’ ছবির সেটে। সেদিন জুহি চাওলার সঙ্গে অভিনয় করছিলেন আমির খান।

কিন্তু রানী অটোগ্রাফ চাইতেই খাতা নিয়ে একটা সই করেই ফিরিয়ে দেন আমির খান। প্রিয় তারকার এমন আচরণে কষ্ট পেয়েছিলেন রানী, সেটিই জানিয়েছেন সাক্ষাৎকারে।

রানী বলেন, আমি তার কাছে গেলাম, তখন বোধহয় একটা শটের মাঝখানে ছিল। আমি খুবই উত্তেজিত ছিলাম। অটোগ্রাফ বইয়েও লিখেছিলাম ‘প্রিয় আমির’। তখন মাত্র ‘কেয়ামত সে কেয়ামত তাক’ মুক্তি পেয়েছে, আমির ছিলেন সব কিশোরী মেয়ের স্বপ্নের পুরুষ! আমি খুব লজ্জা ভাব নিয়ে তার সামনে গেলাম, কিন্তু তিনি আমার প্রতি খুব রূঢ় আচরণ করলেন। খাতাটা নিয়ে স্রেফ সই করে দিয়ে দিলেন। আমার খুবই কষ্ট লেগেছিল সেদিন।

তবে সেদিনের কষ্ট পাওয়ার কথা পরে আমিরকে স্মরণ করিয়ে দিতে ভোলেননি রানী। ‘গোলাম’ ছবির সেটেই বলেছিলেন তাকে— আমির, তোমার কি মনে পড়ে ‘লাভ লাভ লাভ’-এর শুটিংয়ের সময় ছোট্ট একটা মেয়েকে তুমি অটোগ্রাফ দিয়েছিলে? সেই মেয়েটা ছিলাম আমি। তুমি কিন্তু তখন আমার প্রতি রুঢ় আচরণ করেছিল। 

তখন আমির জবাবে বলেন, না, তুমি মিথ্যা বলছ রানী। আমি কখনই বাচ্চাদের সঙ্গে রুঢ় আচরণ করি না। তখন রানী বাসায় ফিরে গিয়ে সেই অটোগ্রাফের খাতা দেখান।

আমির খান-রানী মুখার্জি অভিনীত ‘গোলাম’ মুক্তি পায় ১৯৯৮ সালে। পরে ছবিটি হিট হওয়ার পর এটি তামিল ভাষায়ও রিমেক করা হয়। এর পর ২০১২ সালে ‘তালাশ’ সিনেমায় আবারও একসঙ্গে দেখা যায় আমির-রানীকে।

সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments