Monday, July 4, 2022
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকআফগানিস্তানে ভূমিকম্পে হতাহতের সংখ্যা ২৫০০ ছাড়িয়েছে

আফগানিস্তানে ভূমিকম্পে হতাহতের সংখ্যা ২৫০০ ছাড়িয়েছে

আফগানিস্তানে ৬ দশমিক ১ মাত্রার ভূমিকম্পে হতাহতের সংখ্যা এরই মধ্যে আড়াই হাজার ছাড়িয়ে গেছে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে সংঘটিত এই ভূমিকম্পে মারা গিয়েছেন ১০০০ জন এবং আহতের সংখ্যা ১৫ শতাধিক। ভয়াবহ এই ভূমিকম্পে নিহতদের দাফন করতে চলছে কবরের পর কবর খোঁড়া। দেশটির সরকার আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে সহায়তার আহ্বান জানালেও এখনো সাড়া মেলেনি সেভাবে।

আফগানিস্তানের রাষ্ট্রায়ত্ত সংবাদ সংস্থার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস জানিয়েছে, এই মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। ধ্বংসস্তূপে এখনো অনেকে আটকে আছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা। সরকার সহায়তা ঘোষণা করলেও তা অপ্রতুল। বৈদেশিক সহায়তা চাইলেও সাড়া মেলেনি সেভাবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নিহতদের দাফনে বৃষ্টি মাথায় নিয়েই চলছে কবরের পর কবর খোঁড়া। স্থানীয়দের সঙ্গে এই কাজে যুক্ত হয়েছেন প্রশাসনের লোকজনও। পাকতিকার তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রধান মোহাম্মদ আমিন হুজাইফা বলেছেন, ‘লোকজন কবরের পর কবর খুঁড়ে চলেছে। কেবল আমাদের প্রদেশেই অন্তত ১০০০ লোক মারা গেছেন।’

মোহাম্মদ আমিন হুজাইফা আরও বলেছেন, ‘এখানে বৃষ্টিও হচ্ছে। সব বাড়িঘরই ধ্বংস হয়ে গেছে। অনেক লোকজন এখনো ধ্বংসস্তূপের নিচে রয়েছে গেছেন।’

এই ভূমিকম্পে হতাহতের সংখ্যা ক্রমশ বাড়তে থাকলেও সেভাবে আন্তর্জাতিক সহায়তার সাড়া মেলেনি। প্রতিবেশী দেশগুলো এখন অবধি শোক প্রকাশ করলেও উদ্ধার তৎপরতা বা অন্য কোনো সহায়তা নিয়ে এগিয়ে আসেনি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ তাঁর দেশে পক্ষ থেকে সমবেদনা প্রকাশ করেছেন। একই ধরনের সমবেদনা প্রকাশ করা হয়েছে ভারতের পক্ষ থেকে। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক শোকবার্তা পাঠানো হয়।

তবে, প্রতিবেশী দেশগুলো সাড়া না দিলেও দেশটির সরকার সাধ্যমতো কাজ করছে বলে জানানো হয়েছে এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে। তালেবান নেতা আনাস হাক্কানি এক টুইটে জানিয়েছেন, সরকার সাধ্যমতো সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমরা প্রত্যাশা করি, এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এবং সহায়তা সংস্থাগুলো আমাদের জনগণকে সহায়তা করবে।’

তবে তাঁর বা আফগান সরকারের আহ্বানে সাড়া দেওয়া সংস্থার সংখ্যা খুবই নগণ্য। এনডিটিভি বলছে, এখন পর্যন্ত জাতিসংঘ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) আফগানিস্তানে সহায়তায় এগিয়ে এসেছে। আফগানিস্তানে থাকা জাতিসংঘের মানবিক সহায়তা বিষয়ক কার্যালয় (ইউএনওসিএইচএ) এক টুইটে জানিয়েছে, ‘এরই মধ্যে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণে একটি আন্তঃসংস্থা দল দুর্গত এলাকায় পাঠানো হয়েছে।’

আফগানিস্তানে ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিশেষ দূত থমাস নিকলাসন এক টুইটে লিখেছেন, ‘ইইউ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে এবং দুর্গত এলাকার জনগণকে জরুরি সহায়তা দিতে ইইউ প্রস্তুত রয়েছে।’

এদিকে, পোপ ফ্রান্সিস আফগানিস্তানে ভূমিকম্পে হতাহত এবং ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি বিশেষ প্রার্থনাও করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘এই দুর্ঘটনায় যারা আহত এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তাদের প্রতি আমি সহমর্মিতা প্রকাশ করছি।’ সূত্র : এনডিটিভি

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments