Thursday, February 22, 2024
spot_img
Homeআন্তর্জাতিকআইএসের নারী জিহাদি দলের নেতৃত্ব দেয়ায় মার্কিন নারী গ্রেপ্তার

আইএসের নারী জিহাদি দলের নেতৃত্ব দেয়ায় মার্কিন নারী গ্রেপ্তার

ইসলামিক স্টেটের জন্য নারীদের একটি জিহাদি দল তৈরির অভিযোগে এক মার্কিন নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অ্যালিসন ফ্লুক-ইকরেন নামের ওই নারী যুক্তরাষ্ট্রের কানসাসের বাসিন্দা। তিনি একসময় সিরিয়ায় সন্ত্রাসী সংগঠন ইসলামিক স্টেটের জন্য নারীদের একটি জিহাদি দল তৈরি করেন। পাশাপাশি দলের সদস্যদের একে-৪৭ এসল্ট রাইফেল ও আত্মঘাতী হামলা চালানোর প্রশিক্ষণ দিতেন তিনি। তার দলের সদস্যরা সবাই ছিল নারী ও শিশু। সম্প্রতি এক সন্তানের মা অ্যালিসনকে গ্রেপ্তার করেছে মার্কিন পুলিশ।
বিবিসির খবরে জানানো হয়েছে, তিনি সামনে যুক্তরাষ্ট্রের একটি কলেজে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ জন্য তিনি সদস্যও সংগ্রহ করছিলেন।তার বিরুদ্ধে আনা এসব অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার ২০ বছরের কারাদ- হতে পারে। ২০১৯ সালে করা এফবিআই এর একটি হলফনামা থেকে ফ্লুকে-একরনের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিস্তারিত সংগ্রহ করা হয়। শনিবার ওই হলফনামা প্রকাশ করা হয়েছে। বিচারের মুখোমুখি হতে অ্যালিসন সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ফিরেছেন। হলফনামায় বলা হয়, ২০১৬ সালে সিরিয়ায় আইএস যে খেলাফত তৈরি করেছিল তার কথিত রাজধানী রাক্কায় ‘খাতিবা নুসাইবাহ’ নামে শুধু নারীদের একটি বাহিনী গঠন করা হয়। আইএস এর পুরুষ সদস্যদের বিয়ে করেছেন শুধু তেমন নারীদের নিয়ে ওই বাহিনী গড়া হয়েছিল। ওই বাহিনীতে যোগ দেয়ার পর দ্রুত বাহিনীর নেতৃত্ব চলে যান অ্যালিসন। তিনি বাহিনীর সংগঠকদের এজজনও হয়ে উঠেন।
সেখানে তিনি আইএস এর শত্রুদের বিরুদ্ধে নারীদের আত্মরক্ষার কৌশল শিখাতেন। তিনি আইএস এ যোগ দেওয়া অনেক নারীকে একে-৪৭ রাইফেল, গ্রেনেড এবং সুইসাইড বেল্ট ব্যবহার করা শিখিয়েছেন। এমনকি, তিনি শিশুদেরও এসল্ট রাইফেল ব্যবহার করা শিখাতেন।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments