Tuesday, December 6, 2022
spot_img
Homeজাতীয়‘অবৈধ চোখ রাঙানির উচিত জবাব দেওয়া হবে’

‘অবৈধ চোখ রাঙানির উচিত জবাব দেওয়া হবে’

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘এই দেশ কারো পৈত্রিক সম্পত্তি না। তাই কেউ যদি অবৈধভাবে চোখ রাঙায় আমরা এর উচিত জবাব দিয়ে স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করব।’

তিনি বলেন, ‘মানুষ এখন প্রশ্ন করে যারা আওয়ামী লীগ করে তারা চোর নাকি আওয়ামী লীগ করলে চোর হয়?’

শনিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা পঞ্চবটি এলাকায় আজগর কমিউনিটি সেন্টারে জিয়াউর রহমানের শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা যুবদল আয়োজিত দরিদ্রদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রিজভি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে আমলারা অনেক অনৈতিক সুবিধা পেয়েছে। তাই তারা আওয়ামী লীগ সরকারকেই ক্ষমতায় রাখতে চায়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় টিকে না থাকলে তাদের অন্যায়-অবিচারের বিচার হবে। এই ভয়ে তারা সেটা করতে চাচ্ছে না বা করছে না।’

রিজভী বলেন, ‘বিএনপি মাঠে নামলে আওয়ামী লীগের আমলাদের এত ভয় কিসের? এই যে কথা বলতে না দেওয়া, মিছিল করতে না দেওয়া, সমাবেশ করতে না দেওয়া, মিছিল কিংবা স্লোগানের ধ্বনি শুনতে পেলেই তেড়ে আসা নেকরের মতো লাফ দিয়ে পরে। এর কারণ হচ্ছে অনেক কর্মকর্তারা সরকারের থেকে অনৈতিক সুবিধা ভোগ করছে।’

তিনি বলেন, ‘এই সরকার কোথায় অবৈধভাবে হস্তক্ষেপ করেনি? আজকে মসজিদের খুতবাতেও কী বলা যাবে, কী বলা যাবে না- তা তারা ঠিক করে দেন। কুরআন-হাদিসের আলোকে কথা বলতে গেলে সেখানে অন্যায়-অবিচার সম্পর্কে কথা বলতে হয়। আর এই কথাগুলো বলতে গেলেই তা সরকারের বিরুদ্ধে চলে যায়।’

‘এগুলো আমার বা আমাদের দলের কথা না। মার্কিন সরকারের স্টেট ডিপার্টমেন্ট পর্যবেক্ষণ করে জানিয়েছে মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর এমনকি মসজিদের ওপর সরকার অবৈধ নিয়ন্ত্রণ করছে। বাংলাদেশের ধর্মীয় স্বাধীনতার ওপর সরকার হস্তক্ষেপ করছে। কারণ তারা ভোটারবিহীন, তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার না। তাই তারা সবার বাকস্বাধীনতা হরণ করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। এই হলো দেশের বর্তমান পরিস্থিতি।’

রিজভী আরও বলেন, ‘এই দেশ তো শেখ হাসিনার বাবার না, আওয়ামী লীগের পৈত্রিক সম্পত্তি না। এই বাংলাদেশে আমাদের পূর্বপুরুষেরা বসবাস করেছে, আমরা তাদের উত্তরাধিকার। এই মাটির সন্তান আমরা, আমাদের পূর্বপুরুষেরা স্বাধীনতার জন্য লড়াই করেছেন, অন্যায়-অবিচারের জন্য বুকের রক্ত ঝড়িয়েছেন। এই দেশে আমাদেরও অধিকার রয়েছে। আজকে একটি অবৈধ শক্তি যদি আমাদের ওপর চোখ রাঙায়, আমাদের যদি প্রজা বানাতে চায় এইটা আমরা মানব না, আমরা মাথা নিচু করে থাকব না।’

‘আমরা এর উচিত জবাব দিয়ে জনগণের স্বাধীনতা, গণতন্ত্র ও বাকস্বাধীনতা ফিরিয়ে নিয়ে আসবই। এদেশের গণতন্ত্রের প্রতীক, গণতন্ত্রের মা খালেদা জিয়ার মুক্তি নিশ্চিত করব। রাজনীতির রাজপথে এই সরকারকে প্রতিহত করা হবে।’

প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘আপনার এত ভয় কিসের, আপনি দিনে ভোট করতেও ভয় পান। একটা স্বচ্ছ নির্বাচন দিয়ে দেখেন, আজকে আপনার ও আপনার দলের অবস্থান কোথায়? ২০১৮ সালে রাতের বেলায় ভোট করেছেন, ২০১৪ সালে ভোটকেন্দ্র ছিল ভোটারবিহীন। এইসব করে যারা ক্ষমতায় টিকে থাকে তাদের জুলুম, নির্যাতন, নিপীড়ন ও অত্যাচার করেই ক্ষমতায় টিকে থাকতে হয়। ১৪ বছর ক্ষমতায় থেকে আওয়ামী ক্যাডারদের দিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বানিয়েছেন, তারা আজ সশস্ত্র। এদের বাদ দিয়ে শুধু আওয়ামী লীগ ও বিএনপি রাস্তায় থাকুক, দেখি আপনার কয়জন বীরপুরুষ রাস্তায় থাকে।’

‘আপনি সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে পদ্মা সেতু থেকে টুস করে ফেলে দেবেন। আপনার গায়ের জোরের কথায় এদেশের মানুষ হাসে। আপনার সৎ সাহস থাকলে সুষ্ঠু নির্বাচন দেন, আমরা ক্ষমতায় এলে আপনাকে টুস করে ফেলে দেব না।’

নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবদলের আহ্বায়ক গোলাম ফারুক খোকনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মশিউর রহমান রনির সঞ্চালনায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ।

বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম রবি, সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট মামুন মাহমুদ, মহানগর বিএনপির সহসভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান প্রমুখ। 

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments