Friday, April 19, 2024
spot_img
Homeজাতীয়অপরাধ প্রমাণিত হলে আনারকলির বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ প্রশাসনিক ব্যবস্থা

অপরাধ প্রমাণিত হলে আনারকলির বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ প্রশাসনিক ব্যবস্থা

বাসায় মাদক পাওয়ার অভিযোগে ইন্দোনেশিয়া থেকে দেশে ফিরিয়ে আনা কূটনীতিক কাজী আনারকলির বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কঠোর অবস্থানের কথা জানিয়েছে। তদন্তে  তার অপরাধ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সংসদীয় স্থায়ী কমিটিকে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়। 
বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এই অবস্থানের কথা জানানো হয়। 
বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়–সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খান সাংবাদিকদের বলেন, ইন্দোনেশিয়া থেকে ফিরিয়ে আনা ওই কূটনীতিকের বিষয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। যে অভিযোগ, তা দেশের ভাবমূর্তির সঙ্গে সম্পৃক্ত। মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে শক্ত অবস্থানে আছে। তাকে ওএসডি করা হয়েছে। একটি কমিটি কাজ করছে। ওই কর্মকর্তার অপরাধ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ প্রশাসনিক শাস্তি হতে পারে।
ইন্দোনেশিয়ার মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের একটি দল ৫ জুলাই হঠাৎ জাকার্তায় বাংলাদেশ দূতাবাসের উপরাষ্ট্রদূত কাজী আনারকলির বাসায় অভিযান চালায়। অবৈধ মারিজুয়ানা রাখার দায়ে অভিযানের পর তাকে ইন্দোনেশিয়ার মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের দপ্তরে নেয়া হয়। পরে দূতাবাসের জিম্মায় ছাড়া পান তিনি। এর পরই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তার দেশে ফেরার আদেশ জারি করে। ঘটনা তদন্তে কমিটি গঠন করে মন্ত্রণালয়।

RELATED ARTICLES
- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments